রাজনৈতিক দল, জনগণ সন্তুষ্ট হলে ইভিএম: সিইসি

0 197

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে জেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সংশ্লিষ্ট সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা। জেলা প্রশাসকের মিলনায়তন কক্ষ, দিনাজপুর, ২৫ সেপ্টেম্বর। ছবি: আলমগীর হোসেনপ্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, ইভিএম ব্যবহার করতে হলে আইনের পরিবর্তন করতে হবে। এ জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। আইন পরিবর্তন হলে আমাদের প্রশিক্ষণের প্রয়োজন। প্রশিক্ষণের পর যতটুকু সক্ষম হব, ততটুকু ব্যবহার করার চেষ্টা করব। এর আগে কেন্দ্রীয়সহ জেলা-উপজেলা পর্যায়ে প্রদর্শনী হবে। সেই প্রদর্শনী দেখে রাজনৈতিক দল, জনগণ সন্তুষ্ট হলে ইভিএম ব্যবহার করা হবে।’

মঙ্গলবার বিকেলে দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের মিলনায়তনে একাদশ সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে জেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সংশ্লিষ্ট সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন কে এম নুরুল হুদা।

নির্বাচনের আগে প্রশিক্ষণ, প্রদর্শনসহ রাজনৈতিক দল ও জনগণের সন্তুষ্টি অর্জন করে ইভিএম ব্যবহার করা যাবে কি না? প্রথম আলোর এমন প্রশ্নে নুরুল হুদা বলেছেন, নির্বাচনের আগে সব কটি ধাপ অতিক্রম করা আসলেই সম্ভব হবে না। যতটুকু সম্ভব হবে ততটুকু ব্যবহার করার চেষ্টা করা হবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নে প্রধান নির্বাচন কমিশনার জানান, নির্বাচন কমিশনের কাছে এখন দুই শতাধিক ইভিএম রয়েছে। নির্বাচন কমিশনের বিষয়ে বিএনপির অনাস্থার বিষয়ে তিনি বলেন, এটি বিএনপির রাজনৈতিক স্বাধীনতা।

নির্বাচনে বিএনপিকে নিয়ে আসা এবং আস্থা ফিরিয়ে আনতে সেনাবাহিনী মোতায়েন এবং ইভিএম ব্যবহার বন্ধ করা বিষয়ে প্রশ্নের উত্তরে নুরুল হুদা বলেন, ইভিএম নিয়ে বিএনপিকে বোঝানোর চেষ্টা করব। সেনাবাহিনী মোতায়েনের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে নির্বাচন কমিশন নতুন করে কোনো সংলাপের উদ্যোগ নেবে না বলে জানান নুরুল হুদা।

নুরুল হুদা আরও জানান, আগামী ৩১ অক্টোবর থেকে ২৮ জানুয়ারির মধ্যে নির্বাচন হবে। তবে সিদ্ধান্ত হয়নি। অর্থমন্ত্রী ২৭ জানুয়ারি নির্বাচন হওয়ার বিষয়ে যা বলেছিলেন তা বয়স্ক মানুষ হিসেবে বলেছিলেন বলে উল্লেখ করে তা ভুলে যেতে বলেছেন নুরুল হুদা।

এর আগে সকালে জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার জেলার নির্বাচন কর্মকর্তাদের নিয়ে সভা করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.