অস্ত্রোপচার লাগবে কি না জানতে ইংল্যান্ডে যাচ্ছেন তামিম

0 111
দুবাইয়ে এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে হাতে চোট পান তামিম। এই বাংলাদেশ ওপেনারের শুধু এশিয়া কাপই শেষ নয়, অনিশ্চয়তায় ঝুলে আছে আগামী মাসে দেশের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হোম সিরিজও। চোট থেকে সেরে উঠতে হাতে অস্ত্রোপচার লাগবে কি না, সেটি জানতে কাল ইংল্যান্ডে যাচ্ছেন তামিম।

বাংলাদেশ যখন এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলার স্বপ্ন দেখছে, তামিম ইকবালের তখন তোড়জোড় ইংল্যান্ড যাওয়া নিয়ে। চোট পাওয়া হাত দেখাতে কালই ইংল্যান্ডে রওনা দেওয়ার কথা বাঁহাতি ওপেনারের।

দুবাইয়ে এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে হাতে চোট পান তামিম। মাঠ থেকে তাঁকে সোজা যেতে হয় হাসপাতালে। হাসপাতালে গিয়ে স্ক্যান করার পর জানতে পারেন তাঁর এশিয়া কাপ শেষ! তামিম জীবনের সেরা ছন্দে আছেন। সর্বশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে তিন ম্যাচের দুটিতে সেঞ্চুরি, আরেকটিতে ফিফটি করেছেন। অথচ এই ছন্দ নিয়ে খেলতে পারেননি এশিয়া কাপ। শুধু এশিয়া কাপই শেষ নয়, অনিশ্চয়তায় ঝুলে আছে আগামী মাসে দেশের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হোম সিরিজও।

চোট পাওয়া হাতে অস্ত্রোপচার লাগবে কি লাগবে না, সেটি নিশ্চিত হতে কাল যে ইংল্যান্ডে যাচ্ছেন তামিম, সেটি জানালেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দীন চৌধুরী, ‘চিকিৎসককে দেখাতে তামিম কাল ইংল্যান্ডে যাচ্ছেন। ওখানকার চিকিৎসকই ঠিক করবেন এখন তাকে কী করতে হবে। অস্ত্রোপচার করাতে হবে কি না, সেটি তাই এ মুহূর্তে বলতে পারছি না। আমাদের মেডিকেল টিম বিষয়টি দেখছে।’ বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী অবশ্য বললেন, ‘আপাতত শুধু চোট পাওয়া হাতটা দেখাতেই তামিম যাচ্ছে। ওখানে ড. ডেভিডের কাছে কাছে সে যাচ্ছে। আমরা এক্স-রের ছবি স্ক্যান করে পাঠিয়েছি। তবে চিকিৎসক নিজ চোখে একবার তামিমের চোট দেখতে চান। যদ্দুর জানি, সে হাত দেখিয়েই চলে আসবে। আশা করছি অস্ত্রোপচার লাগবে না। ইংল্যান্ডের চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগের পুরো বিষয়টা দুবাই থেকে দলের ফিজিও থিলান চন্দ্রমোহন সমন্বয় করছে।’

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়লেও তামিম চমকে দেন ১০ নম্বরে আবার ব্যাটিং করতে নেমে। বাংলাদেশ ওপেনারের সেই বীরত্বগাথা এখন বাংলাদেশের ক্রিকেটীয় রূপকথার অংশ। চোট পাওয়া হাত নিয়ে ১ বল খেলে বদলে দিয়েছেন পুরো ম্যাচের রং। অনেক বড় বিসর্জন অবশ্যই। সেই বীরত্বগাথা পেছনে রেখে তামিমকে এখন তাকাতে হচ্ছে সামনে। সামনে তাকাচ্ছেন বলেই চোট থেকে দ্রুত সেরে ওঠার সর্বোচ্চ চেষ্টা করছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.